1. admin@voicebarta.com : admin :
মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
স্বপ্নের পদ্মা সেতু শুভউদ্ভোধন করলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্নের পদ্মা সেতুর শুভ উদ্ভোধন করলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোনাখালায় রাস্তা ব্লক করে বাজারে জনদূভোগ নবীকে কটুক্তি করায় ঢাকায় ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠীত কল্লোল শিল্পী গোষ্ঠীর ঈদ পূনর্মিলনী অনুষ্ঠিত গনকমিশনের এই শ্বেত পত্রের মাধ্যেমে ইসলাম বিদ্বেষী চরিত্র ফুটে উঠেছে- হেফাজতের আমির দোহারে ইসলামী যুব আন্দোলনের ঈদ পুণর্মিলনী অনুষ্ঠিত ঈদে ট্রাকে করে ডিজে সাউন্ডের তালে উৎশৃঙ্খল কিশোরদের বেপরোয়া অঙ্গভঙ্গিতে বিরক্ত সাধারন মানুষ মুসলিম সম্প্রদায়ের সব চেয়ে বড় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপন পাকিস্তানের পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোটে হেরে প্রধানমন্ত্রীর পদ হারিয়েছেন ইমরান খান

ইসলামে নামাজের গুরুত্ব

almas hossain
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১
  • ৪৩৩ বার পঠিত

সালাত ইসলামের অন্যতম দ্বিতীয় স্তম্ভ। ইমানের পর নামাজের চেয়ে গুরুত্ব অন্য কোনো ইবাদতে প্রদান করা হয়নি। কোরআন শরিফে ৮৩ বার নামাজের আলোচনা এসেছে। নামাজ ফরজ হওয়া প্রসঙ্গে আল্লাহপাক বলেন, ‘হে নবী! আমার বান্দাদের মধ্যে যারা মুমিন তাদের বলুন, নামাজ কায়েম করতে’। (সূরা ইবরাহিম, আয়াত-৩১)। অন্যত্র আল্লাহ রাব্বুল আলামীন বলেন, ‘তোমরা লোকদের সঙ্গে উত্তমভাবে কথা বলবে এবং নামাজ আদায় করবে। (সূরা বাকারাহ, আয়াত-৮৩)।

এছাড়াও আল্লাহ তায়ালা নামাজের উপকার সম্পর্কে ইরশাদ করেন, এবং নামাজের পাবন্দি কর দিনের দুপ্রান্তে ও রাতের কিছু অংশে। নিঃসন্দেহে সৎ কাজসমূহ অসৎ কাজসমূহকে মিটিয়ে দেয়।’ (সূরা হূদ, আয়াত-১১৪)। নামাজের ব্যাপক কল্যাণসমূহের উল্লেখযোগ্য একটি হলো নামাজ অশ্লীল ও মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখে। আল্লাহ রাব্বুল আলামীন ইরশাদ করেন, নামাজের পাবন্দি কর। নিশ্চয় নামাজ অশ্লীল ও মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখে। (সূরা আনকাবুত, আয়াত-৪৫)।

যে ব্যক্তি ইসলামের দ্বিতীয় স্তম্ভ নামাজকে সব শর্তসহ খুশু-খুযুর সঙ্গে নবী তরিকায় আদায় করবে তার এই নামাজ তাকে সব ধরনের অশ্লীল ও মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখবে। আর খুশু-খুযুর সঙ্গে নামাজ আদায়কারীদের সুসংবাদ দিয়ে আল্লাহ ইরশাদ করেন, নিশ্চয় সব মুমিন নামাজ আদায় করে।’ (সূরা মুমিনূন, আয়াত-১-২)। এ ছাড়া রাসূল সাঃ এর অশংখ্য হাদিস দ্বারা ও নামাজের গুরুত্ব আলোকপাত করেছেন।

তাছাড়া নামাজের ব্যাপারে যারা উদাসীন থাকে তাদের ব্যাপারে শাস্তির ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘দুর্ভোগ সেসব নামাজির জন্য নিজেদের নামাজের ব্যাপারে যারা থাকে গাফেল।’ (সূরা মাউন, আয়াত-৪-৫)। অন্যত্র আল্লাহতায়ালা ইরশাদ করেন, ‘(সেদিন) অপরাধীদের সম্পর্কে পরস্পরে জিজ্ঞাসা করবে যে, কিসে তোমাদের জাহান্নামের ঠেলে দিয়েছে? তারা বলবে, আমরা নামাজি ছিলাম না।’ (সূরা মুদ্দাসসির, আয়াত-৪২-৪৩)। আর রোজ হাশরে নামাজের মাধ্যমেই হিসাব-নিকাশ শুরু হবে। যার নামাজ সঠিক হবে তার অন্যান্য আমলও সঠিক বলে বিবেচিত হবে। আর যার নামাজ অসুন্দর হবে তার অন্যান্য আমলও অসুন্দর বলে গণ্য হবে। নামাজ তরককারী ব্যক্তি ইসলামি জীবন থেকে বঞ্চিত এবং তার জীবনযাপন কাফেরের জীবনযাপনের মতোই।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 Voice Barta
Theme Customize Theme Park BD